বাংলায় তথ্য ও প্রযুক্তি



অ্যান্ড্রয়েড এবং উইন্ডোজ ফোনে যোগ হচ্ছে কিল সুইচ

বাংলাদেশে মোবাইল চুরি একটি নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। শুধু মাত্র আমাদের দেশেই নয়, এটি উন্নত বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও ঘটতে দেখা যায়। অ্যামেরিকান সংস্থার হিসেব অনুযায়ী দেখা গেছে, ২০১৩ সালে সেখানে প্রায় ৩.১ মিলিয়ন মোবাইল চুরি গেছে যা কিনা পূর্ববর্তী বছরের তুলনায় দ্বিগুণ। ইউরোপে প্রতি ৩ জনের মধ্যে ১ জন মোবাইল হারানো কিংবা চুরির শিকার হয়েছে। কলম্বিয়ায় ২০১৩ সালে প্রায় ১ মিলিয়ন মোবাইল চুরি হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় মোবাইল চুরি বেড়েছে প্রায় ৫ গুন ২০০৯ থেকে ২০১২ সালের মধ্যে। তাই দেখা যাচ্ছে এটা শুধু আমাদের দেশেরই গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা নয়, এটা একটা আন্তর্জাতিক সমস্যা।
এই সমস্যাকে মোকাবেলা করার জন্য অনেক মোবাইল কোম্পানি যেমন স্যামসাং, অ্যাপল তাদের মোবাইলে বিশেষ ব্যবস্থা রেখেছে। আইফোনে বর্তমানে ব্যবহৃত সর্বশেষ ভার্সন আই ও এস ৭ আগের তুলনায় বেশি সফলতা লাভ করেছে। তথ্যমতে গত ৬ মাসে লন্ডনে শতকরা ২৪% এবং স্যানফ্রান্সিস্কতে শতকরা ৩৮% চুরি কমেছে অ্যাপলের নতুন সিকিউরিটি ব্যবস্থার কারনে। মোবাইল চুরি প্রতিরোধে এই সাফল্য অপর একটি জায়ান্ট গুগলকেও উদ্বুদ্ধ করেছে নতুন সুরক্ষা ব্যবস্থা প্রণয়ন করতে। এরই অংশ হিসেবে গুগল নিয়ে আসছে কিল সুইচ। গুগল তার অ্যান্ড্রয়েড এবং উইন্ডোজ ফোন গুলোতে এই সুইচ বসানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এই বাটনের মাধ্যমে মোবাইল ফোনটিকে সম্পূর্ণরুপে অকেজো করে দেওয়া সম্ভব হবে। এর ফলশ্রুতিতে চুরি হওয়া মোবাইলটি মূল্যহীন হয়ে পড়বে।
তবে এক্ষেত্রে একটি বিষয় চিন্তার আর সেটা হচ্ছে হ্যাকার। যদিও উন্নত বিশ্বে মোবাইলের লক খোলা একটু কঠিন কিন্তু বাংলাদেশের মত দেশে তা খুবই সহজ এবং নিরাপদ। তাই এখন দেখার বিষয় এই পদক্ষেপ কতটুকু সফল হয়।

তথ্যসূত্রঃ বিবিসি টেকনোলজি সংবাদ

বার্তাটি শেয়ার করুনঃ

Share to Google Plus
Share to LiveJournal

Tagged as: , 

আপনাকে অবশ্যই লগ করতে হবে মন্ত্যব প্রদান করার জন্য

সাম্প্রতিক আর্কাইভ
বার্তা হেল্প ডেস্ক্